সহবাসের কতদিন পর গর্ভবতী হয়

সহবাসের কতদিন পর গর্ভবতী হয় এই প্রশ্নের উত্তর প্রত্যেক বিবাহিত মহিলাদেরই জানা উচিত। সহবাস করার পর এই যে একজন নারী সব সময় গর্ভবতী হবেন বিষয়টা এমন নয়। গর্ভাবস্থায় সম্পূর্ণরূপে নির্ভর করে পিরিয়ডের দিন এর ওপর। চলুন আজকে আমরা এ ব্যাপারে বিস্তারিত জেনে নেই।

গর্ভবতী হবার সঠিক সময়

মহিলাদের গর্ভধারণ তাদের পিরিওডের চক্রের সাথে সম্পূর্ণরূপে সম্পর্কিত। শারীরিকভাবে সুস্থ প্রত্যেক মহিলার পিরিওডের চক্র ধরা হয় ২৮ থেকে ৩৩ দিন। চিকিৎসা বিজ্ঞান অনুযায়ী পিরিয়ড শুরু হবার আগের সাত দিন এবং পরের ৭ দিন নিরাপদ সময় হিসেবে বিবেচিত হয়ে থাকে। অর্থাৎ আপনার পিরিওডের তারিখ যদি মাসের ১৫ তম দিন হয় তবে ১৫ তারিখের আগে ৭ দিন এবং পরের সাত দিন নিরাপদ সময়। এই সময়ে আপনি যেভাবেই সহবাস করেন না কেন গর্ভধারণের সম্ভাবনা একেবারে থাকে না বললেই চলে। কিন্তু এই সময়ের বাহিরে যে দিনগুলো রয়েছে সেগুলোকে উর্বর সময় হিসেবে ধরা হয়। অর্থাৎ এই অল্প সময়ে যদি বীর্য কোন ভাবে আপনার যোনির ভেতরে প্রবেশ করে তবে নিশ্চিতভাবে আপনি গর্ভবতী হবেন। তবে এই হিসেব শুধু তাদের জন্য যাদের নিয়মিত মাসিক হয়।

আরো পড়ুনঃ প্রেগন্যান্সির লক্ষণ কি কি?

সহবাসের কতদিন পর গর্ভবতী হয়

সহবাসের পর স্পার্ম বা শুক্রাণু নারীর জরায়ুর ভেতরে প্রবেশ করে সর্বোচ্চ পাঁচ দিন পর্যন্ত বেঁচে থাকতে পারে। যদি কোন নারী তার পিরিয়ড শুরু হবার ১৪ তম দিনে কিংবা তার আশেপাশে কোন সুরক্ষা ব্যবস্থা ছাড়াই সহবাস করে তবে তার গর্ভবতী হবার সম্ভাবনা বেশি। সুতরাং সঠিক সময়ে যদি সহবাস করা হয় তবে সহবাসের চার থেকে পাঁচ দিন পরেই সেই নারী গর্ভবতী হয়ে পড়বেন। তবে পিরিয়ডের ১৪ তম দিন কিংবা এর আশেপাশের তারিখ ছাড়াও একজন নারী গর্ভবতী হতে পারেন কিন্তু সেই সম্ভাবনা টা অনেক কম। আবার প্রথমবার মিলন এই যে একজন নারী গর্ভবতী হয়ে পড়বেন বিষয়টা এমন নয়। এটি সম্পূর্ণরূপে নির্ভর করে নারী এবং পুরুষের শারীরিক সুস্থতা ও পিরিয়ডের উর্বর দিনগুলোর ক্রমের উপর। 

আরো পড়ুনঃ গর্ভাবস্থায় সহবাস করা কতটা নিরাপদ?

সহবাসের পর কি শুয়ে থাকতে হয়

না। শুক্রাণু যেকোনোভাবে যোনির ভেতর দিয়ে জরায়ুতে পৌঁছানো মাত্রই ডিম্বাণুর সাথে মিলিত হয়। এক্ষেত্রে সহবাসের পর শুক্রাণুর ভালোভাবে জরায়ুতে পৌঁছানোর উদ্দেশ্যে শুয়ে থাকা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন একটি তথ্য। 

আরো পড়ুনঃ মাসিক মিস হওয়ার কত দিন পর প্রেগন্যান্ট বোঝা যায়

আশা করছি সহবাসের কতদিন পর একজন নারী গর্ভবতী হয় সে সম্পর্কে আমরা পরিস্কার ধারনা দিতে পেরেছি। এরপরেও যদি আপনার কোন প্রশ্ন থাকে তা আমাদেরকে করতে পারেন। 

Related medical and medicine article

কোমর ব্যথার ট্যাবলেট কি

কোমর ব্যথার ট্যাবলেট কি | কোমর ব্যাথা সারানোর সহজ উপায়

কোমর ব্যথার ট্যাবলেট কি এমন প্রশ্ন অনেকেই করে থাকেন। আসলে কোমর ব্যথা এমন একটি সমস্যা, যা শতকরা ৯০ শতাংশ মানুষের...Continue

ইরেকটাইল ডিসফাংশন

ইরেকটাইল ডিসফাংশন থেকে মুক্তির উপায়

ইরেকটাইল ডিসফাংশন বা পুরুষত্বহীনতা বলতে বোঝানো হয় যৌন সঙ্গমের সময় লিঙ্গের উত্থান না হওয়াকে। অর্থাৎ কোন পুরুষ যদি তার সঙ্গিনীর...Continue

ওজন কমানোর উপায়

৭ দিনে ১০ কেজি ওজন কমানোর উপায় গুলো জেনে নিন

৭ দিনে ১০ কেজি ওজন কমানোর উপায় জানতে চান? তাহলে এই লেখাটি আপনার জন্য। কারণ ঘরে বসে ওজন কমানোর উপায়...Continue

এলার্জির চিকিৎসা

এলার্জি দূর করার উপায় | ঠান্ডা এলার্জির চিকিৎসা

এলার্জি দূর করার উপায় বলতে আমরা শুধু ঔষধ সেবনই বুঝে থাকি। কিন্তু ঠান্ডা এলার্জির চিকিৎসা ঔষধ খাওয়ার মাধ্যমে এবং ঘরোয়া...Continue

arrow_right_alt